স্টিল লাইফ পেইন্টিং-০২

0

(স্টিল লাইফ পেইন্টিং) আমরা আমাদের আশপাশ যেসকল জিনিস দেখে থাকি সেসব জিনিসের চিত্রাঙ্কনের নিয়মাবলীগুলো হলো:

১. ছবি আঁকার পূর্বে আমাদের সরাসরি আলোর উৎস নিশ্চিত করতে হবে। যাতে রুমের যেদিক থেকেই দেখি না কেন যে বস্তুটির ছবি আঁকা হবে তার উপর আলো পড়ে।

Still-Life2-1

২. এই ধাপে এসে একটি কার্ডবোর্ডকে আয়তাকার করে কাটত হবে। কার্ডবোর্ডটিকে এমনভাবে বস্তুটির উপর ধরতে হবে যাতে দেখে মনে হয় একটি ফ্রেম।

Still-Life2-2

৩. পরে একটি সাদা কাগজে আয়তাকার করে পেন্সিল দিয়ে বক্স আঁকতে হবে। পরে চার দিকেই ঠিক মাঝ বরাবর পয়েন্ট করতে হবে। যা ছবিটিতে লাল রঙ দিয়ে মার্ক করা হয়েছে।

Still-Life2-3

৪. প্রথমে কিনারা ঘেষে ছবি আঁকা শুরু করতে হবে যাতে পরবর্তীতে জায়গার কমতি না হয়। প্রথমে বামে পাশে একটি বক্র রেখা দিতে হবে। তারপর যে বস্তুর ছবি আঁকবো তার দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে যে কোন জিনিসটি কোন সাইডে রয়েছে।

Still-Life2-4

৫. আয়তাকার আকারে কাটা কার্ডবোর্ডটি ফ্রেম আকারে বস্তুটির উপর বসাতে হবে। পরে পেন্সিলটি ফ্রেমের বাম পাশের নিচের কোনায় বসিয়ে ৬০ ডিগ্র্রি কোন আকারে ধরতে হবে। এতে ছবির অ্যাঙ্গেলটি ঠিক থাকবে।

Still-Life2-5

৬. এরপর প্রথমে ছবির আউটলাইনগুলো দিতে হবে। প্র্রতিটি লাইন হালকা করে পেন্সিল দিয়ে আঁকতে হবে।

Still-Life2-6

৭. এখন ছবির বাইরের অংশগুলো মার্ক করতে হবে। এখানে লাল রঙ দ্বারা পয়েন্ট করা হয়েছে।

Still-Life2-7

৮. এখন ছবিটি এক চোখ বন্ধ করে অন্য চোখ দিয়ে দেখতে হবে। এতে ছবিটি সমতল হয়েছে কি-না তা বোঝা যাবে। আর এক্ষেত্রে প্রতিবার আমাদের একটি চোখই বন্ধ করতে হবে। প্রথমবার যদি বাম চোখ বন্ধ করি তাহলে পরবর্তীতে একই চোখ বন্ধ করতে হবে। যাতে করে ছবিটির গঠন তৈরি করার সময় তালগোল না পাকিয়ে যায়।

৯. ছবিটি আঁকার সময় আমাদেরকে অবশ্যই মূল বস্তুটি যতবার সম্ভব দেখতে হবে। চিত্রাঙ্কনে কোনো ধরনের অসাঞ্জস্যতা এড়িয়ে চলতে এটি জরুরি।

Still-Life2-8

১০. যখনই কোনো ভুল চোখে পড়বে সঙ্গে সঙ্গে তা মুছে ফেলতে হবে। অন্যথায় ছবিটি ভুল আকৃতি ধারণ করতে পারে।

১১. ছবিটিকে পুরোপুরি আকৃতি দেয়ার পর প্রতিটি আউট লাইনকে গাড় করতে হবে। এরপর ভেতরে অংশগুলোতে স্কেচ করতে হবে।

Still-Life2-10

১২. ছবিটি আঁকার সময় একটি বিষয় অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যেন ছায়ার পাশগুলো কালো এবং আলোর পাশগুলো সাদা থাকে। এতে ছবিটির গ্রহণযোগ্যতা বেড়ে যাবে।

Still-Life2-9

১৩. ছবির চূড়ান্ত পর্যায়ে গিয়ে কিছুক্ষণ ছবি আঁকা বন্ধ করে হাটাহাটি অথবা বিশ্রাম করতে হবে। এতে করে আসল বস্তুটির সঙ্গে কোনো পার্থক্য থাকলে তা চোখে পড়বে। মূল বস্তুর সঙ্গে কোনো অমিল পাওয়া গেলে তা ঠিক করতে হবে। আর এরপরই আমরা পেয়ে যাবো আকর্ষনীয় ও চমৎকার একটি  স্টিল লাইফ পেইন্টিং।

Still-Life2-11

Comment

comments

Comments are closed.