ওয়াইডস্ক্রিন টিভি কিনবেন কেন?

0

এ সিদ্ধান্তটি নির্ভর করে মূলত তিনটি বিষয়ের ওপর….

১. আপনার কি আসলেই একটি নতুন টিভি প্রয়োজন?
আপনি যদি আপনার নতুন টিভি ও আগের ৪:৩ ফরমেটের টিভি নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় থাকেন তাহলে, আমরা বলবো ওয়াইডস্ক্রিন প্রযুক্তিতে যান। তবে ৪:৩ প্রযুক্তির টিভি কেনার ক্ষেত্রে আপনার যদি কোন বিশেষ ও নির্দিষ্ট কারণ না থাকে তাহলে।
একটি টেলিভিশন বহু বছর আপনাকে সার্ভিস দেবে। সেক্ষেত্রে নতুন প্রযুক্তির টেলিভিশন কিনলে ভবিষ্যতে যখন চারদিকে ওয়াইডস্ক্রিনের দখলদারিত্ব থাকবে, তখন আপনার টিভিটি পুরাতন হয়ে যাবে না।

২. ওয়াইডস্ক্রিনে আপনি কি দেখেন এবং এতে কি দেখা যায়?
আপনি যদি অনেক বেশি ডিভিডি দেখেন, বিশেষ করে ফিচার ফিল্ম, তাহলে আপনি ওয়াইডস্ক্রিনের প্রতি আকর্ষণ অনুভব করবেন। যেখানে VHS মুভি সাধারণত বানানো হয় ৪:৩ রেশিওর টিভির জন্য। ডিভিডি সাধারণত ওয়াইডস্ক্রিন ভিউ এর জন্য বানানো হয়ে থাকে।
টেলিভিশন প্রোগ্রামের ক্ষেত্রে আপনাকে জানতে হবে যে, আপনার এলাকার ক্যবাল নেটওয়ার্কে কোন কোন চ্যানেল ওয়াইডস্ক্রিন প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। বেশিরভাগ উন্নত দেশেই ওয়াইডস্ক্রিন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। তবে যদি আপনি দেখেন যে আপনার ক্ষেত্রে বেশিরভাগ প্রোগ্রামই ৪:৩ রেশিওতে বানানো, তাহলে আপনি ওয়াইডস্ক্রিনের বিষয়ে আগ্রহ নাও পেতে পারেন। তবে ওটা হয়ত আর বেশি দিন থাকছে না।

৩. দামের তারতম্য
যদি ওয়াইডস্ক্রিন ও ৪:৩ ফরমেটের মধ্যে দামের তারতম্য থাকে, সেক্ষেত্রে এটি আপনার সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে একটি বড় ভূমিকা রাখবে।

উপরোক্ত বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের মতামত আসতে পারে, কিন্তু আমরা মনে করি-আপনি যদি টেলিভিশন অথবা ভিডিও প্রোগ্রাম বানানোর কাজে নিয়োজিত থাকেন, তাহলে আপনাকে এখনই ওয়াইডস্ক্রিন প্রযুক্তিতে প্রোগ্রাম বানানো শুরু করা উচিৎ অথবা এটি নিয়ে ভাবা উচিৎ।
বেশিরভাগ ভোক্তার জন্য, এখনই ওয়াইডস্ক্রিন টিভি কেনার তাড়া নেই। তবে যদি আপনি একটি নতুন টিভি কিনবেন বলে ঠিক করেন, সম্ভব হলে ওয়াইডস্ক্রিন টিভি কিনুন নতুবা নতুন টিভিতে এগোবার কথা থাকলেও আপনি প্রযুক্তিতে পিছিয়ে যেতে পারেন।

Comment

comments

Comments are closed.